You are currently viewing মানুষের জন্য ক্ষতিকর শক্তিশালী প্রানী কোনটি

মানুষের জন্য ক্ষতিকর শক্তিশালী প্রানী কোনটি

মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব। অন্য সকল জীবকে মানুষের অধীনস্থ করে দিয়েছে। বন্য প্রানী বনে সুন্দর শিশুরা মাতৃক্রোড়ে। স্থলে প্রানীদের মধ্যে যেমন শক্তিশালী  প্রানী  রয়েছে তেমনি জলাশয়েও শক্তিশালী প্রানী  রয়েছে। আকাশ পথে যেমন ঈগলের রাজত্ব রয়েছে তেমনিভাবে জলে কুমির বেশি রাজত্ব করে বেড়ায়। এত কিছুর পরও কিন্তু বনের রাজা সিংহই  থাকে। বনের রাজা কখনও পরিবর্তন হয় না। বিভিন্ন দিক থেকে শ্রেষ্ট প্রানী হিসাবে সিংহ বনের রাজা হিসাবে থাকে।

কুমিরের ইংরেজি Crocodile বলা হয়। কুমিরের শারীরিক কিছু বৈশিষ্ট্যের জন্য অন্য সকল হিংস্র প্রানীর তালিকায় এরা শীর্ষে থাকে।এদের যেমন অত্যান্ত শক্তিশালী দাঁত রয়েছে তেমনি ভাবে দ্রুততার সাথে সাঁতার কাটারও কাজ করে থাকে। তবে এদের চোয়ালে  কেউ আটকে পড়লে তা থেকে রক্ষা পাওয়া অনেক মুশকিল। বিভিন্ন সময় অবিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা যখন ঘটে থাকে তখন অনেকেরই অঙ্গ হানি হয়ে থাকে। কুমির আত্ম-রক্ষার জন্য লেজ ব্যবহার করে থাকে। এদের লেজের আঘাতে গুরুতর আহত হওয়ার চান্স থাকে। আজকে আমরা কয়েক ধরনের প্রজাতির কুমিরের সম্পর্কে জানব।

ব্ল্যাক চাইমেন কুমিরঃ

দক্ষিন আমেরিকার উত্তরাংশে এদের দেখতে পাওয়া যায়। পেরু, ইকুয়েডর হতে পূর্ব অঞ্চলের দিকে গায়েনা পর্যন্ত আমাজনের উপকূলে এদের দেখতে পাওয়া যায়। এরা ৪ থেকে ১৩ ফিট পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে। ছোট প্রজাতির কুমিরগুলো মানুষকে আক্রমন করতে না পারলেও বড় সাইজের কুমিরগুলো অত্যান্ত দক্ষ ভাবে মানুষকে আক্রমন করে থাকে। এক জরিপে দেখা গেছে এই প্রজাতির কুমির এই পর্যন্ত ৪৩ ধরনের আক্রমন সম্পন্ন করেছে।

শক্তিশালী প্রানী
ছবিঃ ব্ল্যাক চাইমেন কুমির

শক্তিশালী প্রানীঃ

মাগার প্রজাতির কুমির আমরা যেমন পরিবেশে বাস করি তার আশেপাশেই দেখা যায়। ফ্রেশ ওয়াটার পুল, বিভিন্ন লেক এবং অত্যান্ত ধীর গতির স্রোত যুক্ত অঞ্চলে এদের দেখতে পাওয়া যায়। এরা চ্যাপ্টা আকৃতির এবং এশীয়ার অঞ্চলগুলোতে দেখতে পাওয়া যায়। প্রাপ্ত বয়স্ক অবস্থায় এরা ১৩ থেকে ১৬.৫ ফিট পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে এবং শরীরের  আকার কিছুটা বৃহৎ আকৃতির হয়। মানুষ কারনে অকারনে কান্না করে থাকে কিন্তু কুমিরের কি মানুষের মত অনুভূতি রয়েছে? কুমির কি মানুষের মত কাঁদতে পারে তা জানতে ভিজিট করুন

কুমির
ছবিঃ মাগার কুমির

আমেরিকান কুমিরঃ

ফ্লোরিডা এবং মেক্সিকোর সাথে ক্যারিবীয় অঞ্চলে এদের দেখতে পাওয়া যায়। এদের আমেরিকানরা অ্যালিগেটর বলে ডাকে। তবে মজার ব্যাপার হল এদের অনেকে পোষা প্রানী হিসেবে পোষ মানিয়ে থাকে। এরা অনেকটা কালচে রঙের  পানিতে বাস করে থাকে। আমাদের দেশে ডোবা বা জলাশয়ের নিচে বিভিন্ন প্রানী যেমন বাস করে তেমনিভাবে ফ্লোরিডাতেও অনেক শক্তিশালী প্রানী বিশেষ  করে এই প্রজাতির কুমির বাসা বাড়িতেও দেখা মিলে। বন্যা হলে বা অতিবৃষ্টি হলে এরা পরিত্যাক্ত বাড়ীতে অবস্থান করে। এরা ম্যাক্সিমাম ১৬.৫ ফিট পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে।

American Alliagator
ছবিঃ আমেরিকান অ্যালিগেটর

ঘড়িয়ালঃ

ভারতীয় উপমহাদেশীয় অঞ্চল এবং নেপালেও এদের দেখা মিলে। বাস্তবিক অর্থে এরা বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য প্রানীদের মধ্যে একটি। কিন্তু সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে এরা বিলুপ্ত প্রায় প্রানীদের মধ্যে অন্যতম। চিড়িয়াখানাতে এদের দেখা মিলেছিল। কুমির এবং ঘড়িয়ালের মধ্যে একই ক্যাটাগরির শক্তিশালী প্রানী  হলেও কিছু না কিছু বড় ধরনের পার্থক্য থাকায় এরা পরস্পর  হতে কিছুটা আলাদা প্রকৃতির। এরা ১২- ১৫ ফিট পর্যন্ত লম্বায় হয়ে থাকে। যদিও এরা মানুষের উপর আক্রমন করে না তবে একই সাথে দলবদ্ধ  হয়ে বাস করে থাকে।

ঘড়িয়াল
ছবিঃ ঘড়িয়াল

নীলনদের কুমিরঃ

বিস্তীর্ন আফ্রিকা এবং সম্পূর্ন সাহারা মরুভূমির পাশ দিয়ে নীল নদ বয়েই চলছে। যেহেতু নীলনদ অনেক দীর্ঘ প্রকৃতির এবং এটি বহু দেশে বিদ্যমান তাই এর মধ্যে বসবাসরত কুমিরও বসবাসের কিছুটা ভিন্নতা রয়েছে। এজন্য এরা ফ্রেশ ওয়াটার লেক এবং হালকা সবুজ রঙের পানিতে দেখা যায়। প্রাপ্ত বয়স্ক অবস্থায় এরা ১৬.৫ থেকে ২০ ফিট পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে। এদের পৃথিবীর সবচেয়ে বিপদজ্জনক প্রানী হিসাবে রয়েছে। এক জরিপে দেখা গেছে এরা সম্পূর্ন বছরে গড়ে ৩০০ মানুষের উপর আক্রমন করে থাকে।

নীলনদের কুমির
ছবিঃ নীলনদের কুমির

পরিশেষে, শক্তিশালী প্রানীদের মধ্যে শুধু কুমিরই নেই অন্যান্য প্রানীও রয়েছে। রয়েল বেঙ্গল টাইগার, সিংহ এবং চিতাবাঘের সাথে কুমিরের লড়াই এর ভিডিও আমরা প্রায় দেখে থাকি। কুমির নিজেদের এলাকা রক্ষায়, খাদ্য সংগ্রহে, নিজের বাচ্চাদের রক্ষা করতে অন্য প্রানীদের সাথে লড়াইয়ে যুক্ত হয়। এছাড়াও কিছু গৃহপালিত প্রানীদের ওপর আক্রমন করে থাকে। এমন আরও এমন শক্তিশালী প্রানীদের সম্পর্কে জানার জন্য আমাদের সাথেই থাকুন এবং আপনাদের মূল্যবান মন্তব্য আমাদের সাথে শেয়ার করুন। ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন। ধন্যবাদ।

 

Facebook Comments

YappoBD

YappoBD-হলো poshupakhi.com এর একমাত্র স্বত্তাধীকারি। এই ওয়েবসাইটের সকল প্রকার কন্টেন্ট ইয়াপ্পোবিডি কর্তৃপক্ষ দ্বারা লিখিত, পরিমার্জিত এবং এটি ইয়াপ্পোবিডি এর অঙ্গসংস্থান।