You are currently viewing পোষা লাভবার্ড প্রজাতির সম্পর্কে চমৎকার তথ্য
ছবিঃ লাভবার্ড
  • Post category:পাখি
  • Reading time:1 mins read

পোষা লাভবার্ড প্রজাতির সম্পর্কে চমৎকার তথ্য

লাভবার্ডগুলি জনপ্রিয় পোষা পাখি, এবং রঙিন বর্নের জন্য এরা বিখ্যাত। লাভবার্ডগুলির নামকরণ করা হয়েছে তাদের একচেটিয়া বন্ধনের কারণে। লাভবার্ডস হলো আগাপর্নিস প্রজাতির সদস্য, এরা তোতা পরিবারের অংশ। এরা ক্ষুদ্রতম তোতাপাখির মধ্যে রয়েছে। এই পৃথিবীতে নয়টি প্রজাতির লাভবার্ড রয়েছে। এরা আফ্রিকার স্থানীয়। যদিও এরা আফ্রিকার আদিবাসী তবে এরা বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় পোষা প্রাণী। এদের নয়জনের মধ্যে আটটি আফ্রিকান মূল ভূখণ্ডে এবং অন্য একটি স্থানীয় মাদাগাস্কারে বসবাস করে। এগুলি সবগুলিই প্রায় ১৪-১৭ সেন্টিমিটার দীর্ঘ  হয়ে থাকে এবং এদের ওজন প্রায় ৫০ গ্রাম হয়। এদের ছবি সহ বিভিন্ন প্রজাতির লাভবার্ড সম্পর্কে কিছু তথ্য এখানে রয়েছে।

লাভবার্ড (lovebirds)
ছবিঃ লাভবার্ড

 

১। রোজ ফেস লাভবার্ডঃ

রোজ ফেস লাভবার্ড, পীচযুক্ত ফেসবুক এবং রোজ-কোলাড লাভবার্ড নামে পরিচিত। এদেরকে দক্ষিণ-পশ্চিম আফ্রিকার মরুভূমিতে, বিশেষ করে নামিব মরুভূমিতে দেখা যায়। এই প্রজাতির দুটি স্বীকৃত উপ-প্রজাতি রয়েছে, ১। ক্যাটুম্বেলা, যা বেশিরভাগই অ্যাঙ্গোলায় দেখা যায়।  ২। রোজকোলিস, যা বেশিরভাগ নামিবিয়া, বোতসোয়ানা এবং দক্ষিণ আফ্রিকার কিছু অংশে দেখা যায়। এগুলির গড় দৈর্ঘ্য ১৭-১৮ সেন্টিমিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে। এগুলি বৃহত্তম লাভবার্ডগুলির মধ্যে রয়েছে।

rosy-faced lovebird
ছবিঃ রোজ ফেস লাভবার্ড

 

২। ফিশারের লাভবার্ডঃ

আফ্রিকার এক জার্মান এক্সপ্লোরার গুস্তাভ ফিশারের নামানুসারে এই পাখিগুলির নামকরন করা হয়েছে। এরা প্রাকৃতিকভাবে রঙিন লাভবার্ডদের মধ্যে রয়েছে। এদের ঘাড়ে হলুদ হয়ে মাথার শীর্ষে জলপাই সবুজ হয়ে কমলা রঙে রূপান্তরিত করে, এদের সবুজ পিঠ এবং বুক রয়েছে। এরা প্রায় ১৪ সেন্টিমিটার দীর্ঘ হয়।

Fischer’s Lovebird
ছবিঃ ফিশারের লাভবার্ড

 

৩। মাস্কেড লাভবার্ডঃ

সর্বাধিক সাধারণ রঙের মধ্যে পাওয়া হলুদ ঘাড়ের কারণে হলুদ রঙের লার্ভাবার্ড নামে পরিচিত মুখোশযুক্ত লাভবার্ড। হলুদ রঙের লাভবার্ডগুলি ১৫ সেন্টিমিটারেরও কম লম্বা হয়ে থাকে। এরা ফিশারের লাভবার্ডের মতো একই অঞ্চলে পাওয়া যায়, এদেরকে উত্তর-পশ্চিম তানজানিয়া তে দেখা যায়।

Masked Lovebird
ছবিঃ মাস্কেড লাভবার্ড

 

৪। ব্ল্যাক-উইনজেড লাভবার্ডঃ

এই লাভবার্ডগুলি পোষা ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে বিশেষভাবে জনপ্রিয় নয়। তবে এদের ডানাগুলির নীচের অংশে বিশিষ্ট কালো পালক দ্বারা এই প্রজাতিটি সনাক্ত করা যায়। গোলাপী-মুখযুক্ত লাভবার্ডগুলির পাশাপাশি, ব্ল্যাক-উইনজেড লাভবার্ড সবচেয়ে বড় লাভবার্ডগুলির মধ্যে একটি। এরা প্রায় ১৭ সেন্টিমিটার দৈর্ঘ্য পর্যন্ত হয়ে থাকে। মূলত এদের আফ্রিকার ইরিত্রিয়া এবং ইথিওপিয়ায় দেখা যায়।

Black-winged Lovebird
ছবিঃ ব্ল্যাক-উইনজেড লাভবার্ড

 

৫। রেড ফেস লাভবার্ডঃ

রেড ফেসড লাভবার্ডগুলি লাল মাথাযুক্ত লাভবার্ড হিসাবেও পরিচিত। তাদের মুখের শীর্ষভাগের সামনের লাল অংশের কারণে তাদের নাম যুক্ত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে সমস্ত লাভবার্ডের সর্বাধিক পরিসীমা রয়েছে, মধ্য আফ্রিকা জুড়ে, সিয়েরা লিওন থেকে ইথিওপিয়া পর্যন্ত এবং উত্তর মালি এবং চাদ পর্যন্ত, কেনিয়া এবং অ্যাঙ্গোলা পর্যন্ত বসবাস করে। এরা প্রায় ১৫ সেন্টিমিটার পর্যন্ত লম্বাথয়ে থাকে।

Red-faced Lovebird
ছবিঃ রেড ফেসড লাভবার্ড

 

৬। গেরি হেড লাভবার্ডঃ

গেরি হেড লাভবার্ড মাদাগাস্কারের একমাত্র লাভবার্ড প্রজাতি। এরা মাদাগাস্কারের প্রেম বার্ড নামেও পরিচিত। এরা ছোট লাভবার্ড। এরা ১৩ সেন্টিমিটার পর্যন্ত লম্বা হয়। গেরি হেড লাভবার্ডগুলি পোষা প্রাণী হিসাবে অত্যন্ত বিরল। কারন এরা প্রাকৃতিকভাবে লাজুক প্রকৃতির হয়। এই লাভবার্ডগুলি বিভিন্ন ঘাসের বীজ, ফলমূল এবং শাকসব্জী এবং মাঝে মধ্যে পোকামাকড় খায়।

Grey-headed Lovebird
ছবিঃ গেরি হেড লাভবার্ড

 

৭। লিলিয়ান্স লাভবার্ডঃ

লিলিয়ান্স লাভবার্ড পোষা পাখির জন্য সবচেয়ে উল্লেখ যোগ্য একটি পাখি। এরা নায়সা লাভবার্ড নামেও পরিচিত। এরা প্রেম বার্ডের মধ্যে সবচেয়ে ছোট পাখি। এরা ১৩ সেন্টিমিটারের কম লম্বা হয়। এরা বর্তমানে মালাউইয়ের লিওনডে জাতীয় উদ্যানের প্রায় স্থানীয় পর্যায়ে রয়েছে। এরা ফিশারের লাভবার্ড এবং গোলাপী-মুখী লাভবার্ডের মতো রঙিন রঙের হয়ে থাকে।

লিলিয়ান্স লাভবার্ড Lilian’s Lovebird
ছবিঃ লিলিয়ান্স লাভবার্ডস

 

৮। ব্ল্যাক-কলরেড লাভবার্ডঃ

এরা সবুজ লাভবার্ডের অনুরূপ। কালো গলাওয়ালা লাভবার্ড সাধারনত ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে জনপ্রিয় নয়। কারন এর জন্য দেশীয় ডুমুরের প্রধান খাদ্য প্রয়োজন। এদের ফ্রিকার নিরক্ষীয় রেইন ফরেস্টে, কঙ্গো-কিনশা, কঙ্গো-ব্রাজাভিল, ক্যামেরুন, মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র, লাইবেরিয়া, উগান্ডা এবং আইভরি কোস্টে এদের পাওয়া যায়। এরা প্রায় ১৩.৫ সেমি লম্বা হয়।

Black-collared Lovebird
ছবিঃ ব্ল্যাক-কলরেড লাভবার্ড

 

এই পাখিরা পিতামাতার দায়িত্ব ভাগ করে নিতে পারে। একবার ডিম দেওয়ার পরে মহিলাটি তার বাসাতে বসে এবং ডিমগুলো প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে রাখে। এই সময়ে পুরুষ তার খাবার আনে। ছানাগুলি ছড়িয়ে ফেলার পরে, মহিলা তার ব্রুডের সাথে থাকে এবং পুরুষরা খাদ্য সংগ্রহ করে। এর অর্থ হলো এক পিতা বা মাতা সর্বদা সম্ভাব্য শিকারীদের হাত থেকে বাচ্চাদের রক্ষা করতে সক্ষম। এই পাখিদের মধ্যে একবার বন্ধন সৃষ্টি হলে ভাঙ্গন হয়না। এই পাখিরা ভালবাসার প্রতিক হিসাবে ব্যবহার হয়। এই জন্য এই পখিদের বাসায় গৃহপালিত পাখি হিসাবে পালন করে। এমন আরো অজানা তথ্য জানতে Poshupakhi.com এর সাথেই থাকুন।

Facebook Comments

YappoBD

YappoBD-হলো poshupakhi.com এর একমাত্র স্বত্তাধীকারি। এই ওয়েবসাইটের সকল প্রকার কন্টেন্ট ইয়াপ্পোবিডি কর্তৃপক্ষ দ্বারা লিখিত, পরিমার্জিত এবং এটি ইয়াপ্পোবিডি এর অঙ্গসংস্থান।