বিশ্বের বিখ্যাত সবচেয়ে দামি পোষা প্রাণীর তালিকা

বিশ্বের বিখ্যাত সবচেয়ে দামি পোষা প্রাণীর তালিকা

প্রাণীরা বনে বসবাস করলেও সময়ের সাথে সাথে এরা মানুষের সাথে থাকতে শুরু করেছে। যে সব প্রাণী মানুষের সাথে বসবাস করে আসছে সেগুলো গৃহপালিত প্রাণীর তালিকার অন্তভুর্ক্ত এবং  নিরীহ প্রকৃতির। কিন্তু বর্তমান বিশ্বে অনেকেই শখের বশে প্রাণী পুষে থাকে। সাধারন মানুষ কুকুর এবং বিড়াল পুষে থাকলেও ধনকুবেররা বিলাসিতা জন্যও পুষে থাকে। বিশ্বের বড় বড় ধনী ব্যক্তিরা দামি দামি প্রাণীদের তাদের পোষা প্রানির তালিকায় রাখে। নিচে এমনই সব পোষা প্রাণীর  নাম উল্লেখ করা হল যেগুলা অনেক দামি।

ম্যাকাউ পাখিঃ

ম্যাকাউ এর অনেক প্রজাতি থাকেলেও Hyacinth Macau প্রজাতির পাখি পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে বড় প্রজাতির পাখি। এদের মধ্য আমেরিকার অঞ্চলগুলোতে পাওয়া যায়। মানুষের সাথে এদের এক দিক থেকে মিল রয়েছে। মানুষেরও যেমন বুদ্ধি রয়েছে এদেরও রয়েছে। শুধুমাত্র বুদ্ধিমত্তার জন্য মানুষের নিকট এরা অতি পছন্দের। আমেরিকায় এর দাম অনেক বেশি। যে কারনে বাংলাদেশি টাকায় এর দাম মাত্র দশ লক্ষ টাকা। চোখের নীল রঙ চারপাশের হলুদ রঙের  মধ্যে ফুটে উঠে এর সৌন্দর্য ফুটে উঠেছে। ম্যাকাউ সম্পর্কে আরও জানতে ক্লিক করুন

macau bird পোষা পাখি
ছবিঃ ম্যাকাউ পাখি

স্ট্যাগ বীটলঃ

এ পোকাটি অনেক ছোট আকৃতির, মাত্র তিন ইঞ্চি এবং অনেক দামী। বিরল প্রজাতির হওয়ায় নির্দিষ্ট এলাকা ছাড়া সহজে এদের দেখা মিলে না। এদের মাথার উপরের দুটি পা এদের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করেছে। এরা মারামারি করতে পছন্দ করে প্রতিপক্ষের সাথে এবং দেখা গেছে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই এরা জিতে যায়। এরা আকারে ছোট হলেও দামে ছোট নয়। এদের বাজার মুল্য মাত্র ষাট লক্ষ টাকা।

stag beetle ( পোষা প্রাণী )
ছবিঃ স্ট্যাগ বীটল

সাদা সিংহঃ

সিংহ হল পশুর রাজা। কিন্তু বড় সিংহ পোষা হিসাবে পালন করা অনেক বিপদজনক হয়। তবে সিংহের বাচ্চা আকারে ছোট হওয়ায় সহজে পোষা হিসাবে পালন করা যায়। সাধারন মানুষ অন্য প্রজাতির সিংহকে পোষা হিসাবে না রাখতে চাইলেও সাদা সিংহকে সহজেই পোষা প্রাণী হিসাবে নিজের বাড়িতে দেখতে চায়। এর একটি বাচ্চার মুল্য প্রায় দেড় কোটি টাকা মাত্র।

white lion cub সিংহ
ছবিঃ সাদা সিংহের বাচ্চা

অ্যারাবিয়ান হর্সঃ

বিশ্বের সকল ঘোড়ার মধ্যে এরা সবচেয়ে দামি এবং পুরানো ঘোড়া। ঘোড়াপ্রেমীদের নিকট এরা অনেক প্রিয়। শুধুমাত্র আরবদেশে এদের পাওয়া যায়; এ কারনে এদের অ্যারাবিয়ান হর্স বলা হয়। এরা সুঠাম দেহের অধিকারি  হওয়ায় এদের দাম অনেক বেশি। এদের লেজ এবং ঘাড়ের দিকে চুলগুলো সুন্দর হওয়ায় এদের একটি ঘোড়ার মুল্য দাঁড়ায় মাত্র আশি লক্ষ টাকা। ঘোড়ার বিভিন্ন প্রজাতি সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন

arabian horse ঘোড়া
ছবিঃ অ্যারাবিয়ান হর্স

সাদা কুমিরঃ

কুমির অনেকের কাছে ভয়ের প্রাণী এবং সহজে কেউ কাছে যেতে চায় না। কিন্তু তারপরও কিছু কিছু মানুষের নিকট এটি শখের প্রাণী। এজন্য অনেক টাকা খরচ করে হলেও কুমিরকে পোষা প্রাণী হিসাবে পালতে থাকে। বিরল প্রজাতির হওয়ায় এদের শুধুমাত্র অস্ট্রেলিয়ার কিছু কিছু অঞ্চলে পাওয়া যায়। এদের প্রতিটির মুল্য এক কোটি টাকা মাত্র।

white crocodile কুমির
ছবিঃ সাদা কুমির

মাস্টিফ কুকুরঃ

কুকুর সাধারন মানুষের পোষা প্রানীর তালিকায় শীর্ষে অবস্থান করে। অনেকর কাছে মনে হতেই পারে কুকুর পালতে খুব বেশি খরচ হয় না। কিন্তু সিংহের মত দেখতে “টিবেটিয়ান মাস্টিফ” কুকুর হান্টিং এর জন্য ব্যবহার হয়ে থাকে। এদের পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে দামি কুকুরের তালিকায় ধরা হয়। এদের এক একটির মুল্য প্রায় পাঁচ কোটি টাকা মাত্র।

mustiff Dog পোষা প্রাণী
ছবিঃ মাস্টিফ কুকুর

মিসমিসি গাভীঃ

সম্পূর্ন বাংলাদেশে গরু ঘরেঘরে পালন করা হয়। তাই অনেকর কাছে এই গরুকে দামি প্রনীর তালিকায় রাখতে নাও চাইতে পারে। কিন্তু মিসমিসি হল পৃথিবীর সবচেয়ে দামি গাভিদের মধ্যে একটি প্রজাতি। এরা অন্য গাভীর তুলনায় ৫০% বেশি দুধ উৎপাদন করে থাকে। এজন্য এদের পৃথিবীর সবচেয়ে দামি গাভি বলা হয়। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন প্রতিযোগিতা অংশ নিয়ে এ গাভী জিতেছে। এ কারনেও এদের দাম অনেক বেশি হয়ে থাকে। এদের একটির মুল্য প্রায় দশ কোটি টাকা মাত্র।

গাভি গরু পোষা প্রাণী
ছবিঃ মিসমিসি গাভি

বল পাইথনঃ

সাপ যে কেউ ভয় করে। কিন্তু মানুষ পশু-পাখিদের মধ্যে সাপ সম্পর্কেই সবচেয়ে বেশি জানার আগ্রহ প্রাকাশ করে। ঠিক বিপরীত ভাবে অনেক মানুষই সাপকে পোষা প্রাণী হিসাবে পালতে পছন্দ করে। এমনই এক প্রজাতি হল “ল্যাভিন্ডার বল পাইথন”। এর শরীরের হালকা কুসুম হলুদ বর্ন এবং শরীরের সাদা বর্নের সংমিশ্রন এ সাপকে সৌন্দর্যের শিখরে  পৌঁছে দিয়েছে। এছাড়া এদের চোখ লাল হওয়ায় দেখতে আপূর্ব লাগে। এ প্রজাতির সাপের মুল্য খুব বেশি না মাত্র তেত্রিশ লক্ষ টাকা মাত্র। সাপ সম্পর্কে আরও জানতে ভিজিট করুন 

Ball python
ছবিঃ বল পাইথন

যুবরাজ মহিষঃ

ভারতের একটি গ্রামে মহিষ রয়েছে। মহিষের মালিক তার নাম দিয়েছে “যুবরাজ”। যুবরাজ বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে সবচেয়ে দামি মহিষ। এর প্রতিদিন প্রায় বিশ কেজি ফল, দুধ এবং অন্যান্য গো-খাদ্য খেয়ে থাকে। এর বাজার মুল্য প্রায় এগারো কোটি টাকা মাত্র। যদিও এর দেখা-শুনার জন্য মাসে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ হয়ে থাকে।

মহিষ
ছবিঃ মহিষ

মানকি ঘোড়াঃ

নামটা অনেক বিচিত্র মনে হলেও এটা মূলত একটি ঘোড়া। এর সম্পুর্ন নাম গ্রীন মানকি ঘোড়া। এদের আমেরিকার বিভিন্ন বীচে পাওয়া যায়। এজন্য এদের সী-বিচের ঘোড়া বলা হয়। এরা পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে দামি ঘোড়া। এরা পৃথিবীর দ্রততম ঘোড়ার শীর্ষে অবস্থান করে। এরা প্রতি দশ সেকেন্ডে এক কিলো পর্যন্ত দৌড়াতে পারে। এজন্য এদের একটি ঘোড়ার মুল্য প্রায় একশো বিশ কোটি টাকা মাত্র।

Horse
ছবিঃ ঘোড়া

পরিশেষে, শখের কোন শেষ নেই এবং শখ পুরন করার কোন বয়স নেই। বিভিন্ন বয়সে মানুষের শখ জাগতেই পারে এবং সেগুলো পুরনও করা উচিৎ। সুতরাং শখ পুরন করুন এবং আমাদের সাথেই থাকুন। পশুপাখি সম্পর্কে আরও জানতে আমাদের সাথেই থাকুন এবং আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ার পেজে আপনাদের মতামত শেয়ার করতে ভুলবেন না।

Facebook Comments

YappoBD

YappoBD-হলো poshupakhi.com এর একমাত্র স্বত্তাধীকারি। এই ওয়েবসাইটের সকল প্রকার কন্টেন্ট ইয়াপ্পোবিডি কর্তৃপক্ষ দ্বারা লিখিত, পরিমার্জিত এবং এটি ইয়াপ্পোবিডি এর অঙ্গসংস্থান।